মঙ্গলবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২২   মাঘ ৪ ১৪২৮   ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
পোশাক রপ্তানি: বড় বাজারে বড় প্রবৃদ্ধি আশা জাগাচ্ছে আরও ৯৬ লাখ ফাইজারের টিকা এলো যুক্তরাষ্ট্র থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের তথ্য গুজব: শিক্ষা মন্ত্রণালয় জীবননগরে কৃষি কাজে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ‘রাইস ট্রান্সপ্লান্টার’ গড়াই নদী খনন প্রকল্পে সুফল পাচ্ছে কুষ্টিয়ার বাসিন্দারা চুয়াডাঙ্গায় দুর্বৃত্তরা কেটে ফেলেছে ২৬টি কমলাগাছ মেহেরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুজনের কারাদণ্ড
১৬৪৬

আগেও দুবার মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছিলেন রোজিনা!

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২০ মে ২০২১  

সরকারি নথি চুরির অভিযোগে আটক প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নিয়ে প্রথম আলোর সাংবাদিক সাবিহা আলম ও তার বাবার ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে। সাবিহা বলেন, “রোজিনার চুরির অভ্যাস আর গেল না!”

এর আগে রোজিনার দুটি ভিডিও প্রকাশ হয়েছে যেখানে তাকে কোনো ধরণের নির্যাতন না করার প্রমাণ পাওয়া যায়। অপর একটি ভিডিওতে তিনি চুরির কথা স্বীকার করে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করেন।

সাংবাদিক সাবিহা আলমের কথোপকথনে রোজিনাকে নিয়ে টেন্ডার সিন্ডিকেটের পক্ষে কাজ করার যে অভিযোগ ছিল, তা আবারও প্রমাণ হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব দায়িত্ব পাওয়ার আগে রোজিনার স্বামীর তিনটি টেন্ডার পাওয়ার তথ্য জানা যায় সাবিহা আলমের কথোপকথনে।

টেন্ডার সিন্ডিকেটের দোর্দণ্ড প্রতাপশালী এবং সম্রাট ও সাহেদ আলম সিন্ডিকেটের সদস্য মনিরুল ইসলাম মিঠু তার স্ত্রী রোজিনার সহযোগিতায় বিত্তবৈভবের মালিক হন। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়েও নথি চুরি করে ধরা পড়েছিলেন রোজিনা। তখনো মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পায়। অনুসন্ধানী সংবাদ প্রকাশের নামে রোজিনা মূলত টেন্ডার সিন্ডিকেটের পক্ষে কাজ করতে‌ নথি চুরি করে কর্মকর্তাদের ব্লেকমেইল করার চেষ্টা করেছিলেন।

যারা দুর্নীতি ও নীতি নৈতিকতার কথা বলেন, তারা কি রোজিনার ক্ষেত্রে বিবেক বন্ধক দিয়েছেন? সাংবাদিক কি আইনের ঊর্ধ্বে?

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর