শনিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৯   ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
বিজয়ের মাসকে ‘মুক্তিযোদ্ধা মাস’ ঘোষণার দাবি দেশে করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পাঁচ বছরের মধ্যে সারাদেশে বিদ্যুতের তার মাটির নিচে যাবে সারা দেশে পুলিশের পক্ষকালব্যাপী বিশেষ অভিযান শুরু কুষ্টিয়ায় খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি ঢাকায় অগ্নিসন্ত্রাসীদের বিশৃঙ্খলার লাইসেন্স দেয়া হবে না পদ্মা সেতুর সুফল পেতে শিল্পকারখানার প্রত্যাশা
৯৬

জিতেই স্তন বের করে ভক্তদের দেখালেন নারী বক্সার (ভিডিও)

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০২২  

জয় উদযাপনের কি কোনও ভাষা হয়? সেলিব্রেশন কি এক ভাবেই হতে হবে? এই নিয়ে কোনও আলোচনা সভায় দীর্ঘ আলোচনা চলতেই পারে। তবে স্পোর্টস দুনিয়ায় মাঝেমধ্যেই এমন কিছু ঘটে যায়, যা গোটা বিশ্বের চোখ কপালে তুলে দেয়। অসাধারণ কোনও ম্যাচ জেতার পর খেলোয়াড়রা বিভিন্ন ভাবে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে খবরে আসেন। এবার ঘটেছে তেমনই এক ঘটনা। ভক্তদেরকে নিজের স্তন বের করে দেখিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি মিক্সড মার্শাল আর্ট ওরফে এমএমএ-তে এক মহিলা বক্সার জয়ের পর যা করলেন তা নজিরবিহীন। ৩৫ বছরের মহিলা কিকবক্সার টায়ে এমেরি  বিয়ার নাকল ফাইটিং চ্যাম্পিয়নশিপে অভিষেক করেছিলেন। এই ম্যাচ জেতার পর তিনি রিংয়ের রোপের ওপর উঠে পরনের টপ তুলে নিজের স্তনযুগল সকলকে দেখান! যা দেখে চমকে গিয়েছে সবাই। এমেরির টপের নীচে ছিল কোনও অন্তর্বাস। এমএমএ-র ইতিহাসে কখনও এমন দৃশ্য দেখা যায়নি।

এমেরি নিজেই এই উন্মাদনার ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। লক্ষাধিক ফলোয়ার রয়েছে তার। এমেরি এই ভিডিও পোস্ট করে লেখেন, 'যাঁরা জানতেন না, তাঁরা এখন থেকে জানবেন যে, আমি টাই এমেরি। আমি সেই সকল মানুষকে চিয়ার্স বলতে চাই, যাঁরা আমাকে পেটের ভাত দিয়েছে, শোওয়ার জায়গা দিয়েছে, ট্রেনিংয়ের জায়গা দিয়েছে, আমাকে কোচিং করিয়েছে কিংবা আমার ওপর বিশ্বাস রেখেছে। কখনই এসব জলে যায়নি। আমি সবসময় দশ গুণ প্রাণশক্তি ফিরিয়ে দেব। এই গোলের জন্য আমি গর্বিত।'এমেরি বিকিনিতে প্রায়ই ছবি পোস্ট করে থাকেন। শরীর প্রদর্শন নিয়ে কোনও ছুৎমার্গ নেই তাঁর। এমেরির বোল্ড ফটোশ্যুট অনুরাগীদের মনে আলাদা জায়গা করে নেয়।

এমেরির ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন এখানে

গত অগস্টে মেয়েদের ইউরো কাপে ইংল্যান্ড ২-১ গোলে জার্মানিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ঘরের মাঠ ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইতিহাস লিখেছিলেন সেই দেশের মেয়েরা। ইংল্যান্ড মহিলা ফুটবল দল এই প্রথম কোনও বড় ট্রফি জেতে। এর পাশাপাশি পুরুষ ও মহিলা মিলিয়ে ১৯৬৬ সালের পর এটাই প্রথম ট্রফি জয় ইংল্যান্ডের। ম্যাচে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত খেলা অমীমাংসিত (১-১) থাকায়, খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ম্যাচ ছিল একেবারে ফিফটি-ফিফটি। তবে ফুটবল বিধাতা ইংল্যান্ডের জন্যই ট্রফিটা তুলে রেখেছিলেন। ১১০ মিনিটে কর্নার থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ক্লো কেলি। এরপর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি জার্মানরা। এই গোলের পর ক্লো কেলি জার্সি খুলে মাঠে ঘুরিয়ে ছিলেন। যদিও তিনি ইনার পরেই ছিলেন। ক্লোর সেলিব্রেশন ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। ক্লোর পর এবার খবরে এমেলি!

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর