বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯   ১২ মুহররম ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
৫৩৬

খাঁচায় পাখি পালন নিয়ে ইসলাম যা বলে

প্রকাশিত: ৯ জুলাই ২০২১  

পাখি আল্লাহ তায়ালার অন্যতম সুন্দর সৃষ্টি। পরিবেশ রক্ষায় পাখির ভূমিকা অসামান্য। তবে অনেকেই আছেন পাখি পুষতে ভালোবাসেন। দেশ বিদেশের নানা রঙের এবং প্রজাতির পাখি কিনে খাঁচায় বন্দি করে পালন করেন। খাঁচায় আটকে পাখি পালন করা বৈধ নয়। এমন কথা অনেকেই বলে থাকেন।

কয়েকজন সাহাবি থেকে খাঁচায় পাখি লালন-পালন করার বৈধতা প্রমাণিত হয়েছে। হজরত হিশাম ইবনে উরওয়া (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আবদুল্লাহ ইবনে যুবায়ের (রা.) মক্কায় ছিলেন। তখন সাহাবিরা খাঁচায় পাখি রাখতেন। (আল আদাবুল মুফরাদ, হাদিস ৩৮৩)

তবে এক্ষেত্রে যথাযথ পরিচর্যা করতে হবে। পাখির পরিচর্যা করতে না পারলে অথবা বন্দি করে রাখার কারণে পাখি কষ্ট পেলে খাঁচায় আটকে রাখা জায়েজ হবে না। সেক্ষেত্রে ছেড়ে দিতে হবে। খাবার-পানির সঠিক ব্যবস্থা করে ও কোনো ধরনের কষ্ট না দিলে— খাঁচায় বন্দি করে পাখি পোষা জায়েজ। (আপকে মাসায়েল আওর উনকা হল : ৪/৪৫৪)

যেসব পাখি খাঁচাতেই জন্মায় এবং এখানেই জীবনযাপন করে অর্থাৎ (উড়া পাখি নিয়ে এসে বন্দি করা হয়েছে এমন নয়) এসব পালিত পাখিকে নিয়মিত খাবার পানি ও চিকিৎসা দিয়ে সুন্দরভাবে পরিচর্যা করতে পারলে খাঁচায় রেখে লালন-পালন করা জায়েজ হবে। বাইরে উড়ে বেড়ায় এমন পাখিকে খাঁচায় বন্দি করলে তাদের কষ্ট হতে পারে। তাই এ ধরনের পাখি খাঁচায় বন্দি না করাই উচিত। কেননা এতে তাদের স্বাধীন জীবনযাপন ব্যাহত হয়।  

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর