রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩   মাঘ ১৬ ১৪২৯   ০৭ রজব ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফাইনাল রাউন্ডে ব্রাজিল
১৪৫০

কলিগদের সঙ্গে যে কথাগুলো শেয়ার করা ঠিক না

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০২২  

কলিগদের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে প্রথমে প্রাধান্য দিতে হবে পেশাগত সম্পর্ককে। ব্যক্তিগত আলাপ বিশেষ করে আপনার দুর্বলতাগুলো বলতে যাবেন না। এতে আপনার ক্যারিয়ারে দীর্ঘমেয়াদি নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

ব্যক্তি জীবনে আপনার বড় কোনো ভুল থাকতে পারে। সেই ভুলের মাসুলও হয়ত আপনি দিয়েছেন, তারপর এক অফিসে কাজ করছেন। মন দিয়ে কাজ করুন, সেই ভালো। নিজের ভুলগুলো কারো সঙ্গে শেয়ার করলে মন হালকা লাগে। অনেক সময় এতে বন্ধুত্ব গাঢ় হয়। সেজন্য বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলুন, কলিগদের সঙ্গে কথা বলতে মাপকাঠি ভুলে গেলে চলবে না। ভুল যেরকমেরই হোক না কেন কলিগদের সঙ্গে তা নিয়ে আলোচনা একেবারেই উচিৎ নয়। কারণ আপনার এই দুর্বল দিকটি জেনে ফেলার পর তা ব্যবহার করে আপনারই ক্ষতি করতে পারেন তারা। তাই এই কাজটি না করা ভালো।

বেসরকারি চাকরিতে মানুষ সব সময় একই অফিসে কর্মরত থাকেন না। সফলতা পেতে হলে উন্নতি করতে চাইলে সময় বুঝে অনেক কিছুই করতে হয়। এ নিয়ে আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা অবশ্যই থাকবে বা আছে, এগুলো কলিগদের মধ্যে আলোচনার মতো নয়। আপনি হয়তো বন্ধু ভেবেই বলবেন কিন্তু কথাটি অসময়ে আপনার বসের কানে যেয়ে আপনারই ক্ষতি করতে পারে। 

একটু লক্ষ্য রাখবেন তা হলো বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে আপনার প্রতিযোগিতামূলক কিছুই নেই, কিন্তু একজন কলিগ আপনাকে প্রতিদ্বন্দ্বী ভেবে বসতে পারেন। আপনার বলা অতি ব্যক্তিগত কোনো কথা দিয়ে আপনার ক্ষতি করেও ফেলতে পারেন। 

আপনি যদি একটি অফিসে দীর্ঘদিন কাজ করতে চান, তবে অফিসের কলিগদের সঙ্গে সম্পর্ক একটা পর্যায় পর্যন্ত সীমাবদ্ধ রাখুন। খুব ব্যক্তিগত আলাপে যাবেনা, ব্যক্তিগত সমস্যা আপনার চাকরিক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি করে দিতে পারে। তাছাড়া আপনি যে দীর্ঘদিন একই অফিসে কাজ করতে চান সে বিষয়েও কাউকে জানানোর প্রয়োজন নেই।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর