বুধবার   ২৯ জুন ২০২২   আষাঢ় ১৬ ১৪২৯   ২৯ জ্বিলকদ ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
মাগুরার কৃষকদের বিনামূল্যে আমন ধানের উপকরণ বিতরণ ‘যুদ্ধ করতে প্রস্তুত’ সৈন্যের সংখ্যা দশগুণ বাড়াচ্ছে ন্যাটো মেহেরপুরে আবারো বাড়ছে অ্যানথ্রাক্স রোগীর সংখ্যা ইবিতে ফাজিল পরীক্ষার ফল প্রকাশ এসআই নিয়োগের ফল প্রকাশ, সুপারিশপ্রাপ্ত ৮৭৫ জন ’৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ গড়তে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ: প্রতিমন্ত্রী
১১৮

নির্মাণের ৫০ বছর পর মুক্তি পায় হরর মুভি ‘দ্য এনট্রাম’

প্রকাশিত: ১৬ মে ২০২২  

তৎকালীন ৮৬ জনের প্রাণ নিয়েছিল অভিশপ্ত মুভিটি। মুভিটির কাহিনীতে দেখানো হয়েছে দুই ভাইবোনের নরকের রাস্তা খোঁজার গল্প।

অনেক বেশি ভয় পেলেও হরর মুভির প্রতি অন্য রকম আকর্ষণ কাজ করে দর্শকের। কিন্তু হরর মুভির খুব বেশি ভয়ংকর দৃশ্য দেখে অনেকেই আবার অজ্ঞান হয়ে যান। কখনো আবার মৃত্যুর খবরও পাওয়া যায়। 

এ যাবৎকালের সবচেয়ে ভয়ানক হরর মুভি বলা হয় 'দ্য এক্সরসিস্ট' কে- যা একপ্রকার ক্লাসিক হররও বলা চলে। কিন্তু এমনও একটা মুভি আছে যেটা এরচেয়েও ভয়ানক ছিল পর্দায়। মুভিটির নাম ‘দ্য এনট্রাম’।

মুভিটির কাহিনীতে দেখানো হয়েছে দুই ভাইবোনের নরকের রাস্তা খোঁজার গল্প। এমন দুইজন ভাইবোনের যারা তাদের মৃত কুকুরের আত্মাকে ফেরত আনার জন্যে নরকের রাস্তা খুঁজতে বের হয়। 

মুভিটি নির্মিত হয় ১৯৭০ সালে। কিন্তু তা মুক্তি পায় প্রায় ৫০ বছর পর। তাও আবার শুধুমাত্র জাপানে। বাকি দেশগুলোর কেউ মুভিটা রিলিজই দিতে চায়নি।

মুভিটি এতটাই ভয়ংকর যে মুক্তির পর মোট ৮৬ জন লোকের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। 'দ্য এনট্রাম' এর প্রথম শো হয় ১৯৮৮ সালে জার্মানিতে। প্রথম শো তেই ঘটে দুর্ঘটনা। শো এর বিরতির সময় পুরো থিয়েটারে আগুন লেগে যায়। যার ফলে ৫৬ জন লোকের মৃত্যু হয়। 

৫ বছর পর মানে ১৯৯৩ সালে আবার মুভিটা দেখানোর চেষ্টা করা হয় আর এইবার ৩০ জন লোকের মৃত্যু ঘটে। শুধু থিয়েটার নয়, এবার পুরো বিল্ডিং ধসে পড়ে যায়। 

জাপানে যখন মুভিটি রিলিজ দেয়া হয়েছিল, তখন সবাইকে বাড়ি থেকে একটা করে ব্যাগ আনতে বলা হয়। মুভি দেখার সময় দর্শকদের ভাষ্য ছিল- যেন তারা এমন কিছু দেখে ফেলেছেন যা তাদের দেখা উচিত হয়নি।

সূত্র: ফিল্মি ইন্ডিয়ান

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর