বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯   ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পাওয়ায় শুভেচ্ছায় সিক্ত ইবি ভিসি জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ নিয়ে সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত হজের নিবন্ধনের সময় বাড়লো
৮২

কুষ্টিয়ায় ঘানিতে ভাঙানো তেলে বিদেশফেরত যুবকের ভাগ্য বদল

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭ জানুয়ারি ২০২২  

কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার শেরকান্দি গ্রামের মৃত মোতালেবের ছেলে বিদেশ ফেরৎ মিজানুর রহমান (৪২) ঐতিহ্য ও সনাতন পদ্ধতিতে খাঁটি সরিষার তেল উৎপাদনকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়ে সংসারের হাল ধরেছেন। বলদ দিয়ে ঘানিতে ভাঙানো খাঁটি সরিষার তেল বিক্রি করে বদলেছেন ভাগ্য। পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে এ খাঁটি সরিষার তেল কুষ্টিয়াসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তিনি সরবরাহ করছেন। অনেকে আবার খাঁটি তেলের আশায় ছুটে আসছেন ঘানিতে।

মিজান ২০১১ সালে সংসারের অভাব-অনাটন মেটাতে পরিবার-পরিজন ফেলে ওমানে ওয়েল্ডিং’র কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে তাঁর দুই পায়েরই গোড়ালী ভেঙে যায়। কাজ করার অনুপোযুক্ত হয়ে পড়ায় ২০১৯ সালে দেশে ফিরে এসে স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়ে এবং বৃদ্ধ মা সব মিলিয়ে ৬ সদস্যের সংসার কিভাবে চালাবেন এ নিয়ে মহা দুঃশ্চিন্তায় পড়েন। এরমধ্যে বাড়ির পাশে গড়ে তোলেন হালের বলদ দিয়ে কাঠের ঘানিতে খাঁটি সরিষার তেল ভাঙানোর ব্যবসা।

নিজের নামে প্রতিষ্ঠানের নাম দেন মিজান এন্টারপ্রাইজ। ঘাড়ে ঘানি আর চোখের ওপর মোটা কাপড়ের পর্দা দেওয়া বেঁধে দিয়ে চলছে কলুর বলদ। কাঠের তৈরি ঘানিটা ঘুরছে আর সরিষা পিষে তা থেকে খাঁটি সরিষার তেল উৎপাদন হচ্ছে। ধীরে ধীরে টিনের পাত্রে এসে সেই সরিষার তেল জমা হচ্ছে। এভাবে শুরু হয় হালের বলদ দিয়ে বিদেশ ফেরৎ যুবক মিজানের খাঁটি সরিষার তেল তৈরির ব্যবসা।

তেলের ঝাঁজালো গন্ধে যে কারে চোখে পানি এসে যেতে বাধ্য। অন্য কোন কিছু না মেশানের কারণে খুব অল্প দিনের মধ্যেই মিজানের এই কলুর বলদ দিয়ে ভাঙানো খাঁটি সরিষার তেলের কথা উপজেলা ছাড়িয়ে জেলা এমনকি দূর-দূরান্তে ছড়িয়ে পড়ে। এর পর আর মিজানকে পিছে ফিরে তাকাতে হয়নি।

নিজের ভাগ্য বদলের পাশাপাশি কয়েকজনের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে মিজানের এই ঘানি ভাঙানো কারখানায়। মিজান জানান, দেশে ফিরে এসে যৎসামান্য টাকা আর হালের দুইটি বলদ দিয়ে শুরু করেন বলদ দিয়ে সরিষার তেল ভাঙানো ব্যবসা। এখন নিজের সংসারের হাল ধারার পাশাপাশি মানুষকে ভেজাল মুক্ত তেল খাওয়ানোর জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর