বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯   ১২ মুহররম ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
৪০

বিশ্বকাপের আগে দল বদলাচ্ছেন যে আর্জেন্টাইনরা

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২২  

বিশ্বকাপের বছরে দল বদলের বাজারে আলাদা নজর থাকে সবার। নভেম্বরে পর্দা উঠছে কাতার বিশ্বকাপ। তার আগেই শুরু হয়ে যাবে ক্লাব ফুটবলের আরেকটি নতুন মৌসুম। সেখানে খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সে আলাদা নজর থাকবে দলগুলোর। বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট ধরা হচ্ছে আর্জেন্টিনাকে। এবারের দলবদলে আলবিসেলেস্তেদের কমপক্ষে সাতজন তারকা বদলাচ্ছেন দল।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আর্জেন্টিনা সবশেষ হেরেছে ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে। ব্রাজিলের বিপক্ষে সে হারের পর টানা ৩৩ ম্যাচ ধরে অপরাজিত আলবিসেলেস্তেরা। এ সময়ে তারা ঘরে তুলেছে দুটো শিরোপা। তাই আসন্ন বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার ভালো সম্ভাবনা দেখছেন অনেকেই। বিশ্বকাপে নজর কাড়তে পারেন এমন অনেক তারকার সঙ্গে পরীক্ষিত বেশ কয়েকজন তারকা এই গ্রীষ্মেই ক্লাব বদলাচ্ছেন। এই তালিকায় আছে পাওলো দিবালা, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার মতো নাম। দল বদলে যেমন তারা আরও ক্ষুরধার হয়ে উঠতে পারেন নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে। আবার সম্ভাবনা থাকে প্রত্যাশার চাপে নিজেকে হারিয়ে ফেলার সম্ভাবনাও।

দেখে নেওয়া যাক দল বদলের অপেক্ষায় থাকা আর্জেন্টাইন তারকাদের নাম-

১. অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া: চলতি জুনেই ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়ন পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ ফুরিয়েছে এই উইঙ্গারের। নতুন করে তাকে আর দলে ধরে রাখার চেষ্টা করেনি ফরাসি জায়ান্টরাও। এমবাপ্পে-মেসি-নেইমারদের ভীড়ে এই ৩৪ বছর বয়সী তারকাকে নিয়ে আর আগ্রহী নয় পিএসজির কতৃপক্ষ। তার নতুন ঠিকানা হিসেবে প্রথমে য়্যুভেন্তাসের নাম শোনা গেলেও বার্সেলোনাও তাকে নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করায় এখনো অনিশ্চিত তার গন্তব্য।

২. পাওলো দিবালা: দি মারিয়ার মতো দিবালাও এখন ফ্রি এজেন্ট। ইতালিয়ান ক্লাব পালের্মো থেকে য়্যুভেন্তাসে আসার পর পারফরম্যান্স দিয়ে সবার মন জয় করে নেন এই আর্জেন্টাইন। দ্রুতই পরিণত হন ক্লাবটির আক্রমণভাগের নেতায়। কিন্তু রোনালদো আসার পর তার অবস্থান নড়বড়ে হয়ে যায়। পরবর্তীতে তিনি আর নিজের সেই অবস্থানে ফিরতে পারেননি। এই জুনে তাই চুক্তির মেয়াদ শেষে তুরিনের বুড়ি ছেড়ে নতুন যোগ দিচ্ছেন তিনি। চার বছরের চুক্তিতে ইন্টার মিলানে যাচ্ছেন এই ২৮ বছর বয়সী।

৩. জুলিয়েন আলভারেজ: রিভার প্লেটের এই ফরোয়ার্ডকে অবশ্য গত জানুয়ারিতেই দলে নিয়েছে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। তবে মৌসুমের বাকি সময়টা আর্জেন্টাইন ক্লাবটিতেই তাকে ধারে খেলতে দেয় সিটিজেনরা। সাড়ে পাঁচ বছরের চুক্তিতে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেওয়া আলভারেজকে সিটিজেনদের সাগর নীল জার্সিতে ইতিহাদে দেখা যাবে নতুন মৌসুমের শুরুতেই।

৪. নিকোলাস তালিয়াফিকো: আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের এই লেফটব্যাকের সঙ্গে বর্তমান ক্লাব আয়াক্সের চুক্তি ২০২৩ সাল পর্যন্ত। কিন্তু এরই মধ্যে তাকে দলে ভেড়াতে আগ্রহী বেশ কয়েকটি ক্লাব। তাই এই দল বদলেই তার ঠিকানা বদলে যেতে পারে। তার নতুন ঠিকানা হতে পারে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল ওয়েস্ট হ্যাম।

৫. লিসান্দ্রো মার্টিনেজ: আয়াক্সে তালিয়াফিকোর সঙ্গেই খেলে থাকেন ২৫ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডার। তবে নতুন মৌসুমে ঠিকানা বদলে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা তার। ২০২৫ সাল পর্যন্ত নেদারল্যান্ডের ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তি থাকলেও ইংলিশ জায়ান্ট আর্সেনালের ৩০ মিলিয়ন পাউন্ডের লোভনীয় চুক্তি এড়ানো ক্লাবটির জন্য কঠিনই হবে।

৬. নাহুয়েল মোলিনা: ২৪ বছর বয়সী এই রাইটব্যাককে অনেকেই বলছেন ভবিষ্যতের দানি আলভেজ। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তির সঙ্গে খেলার ধরণে মিল থাকায় এরই মধ্যে সাড়া জাগিয়েছেন ইউরোপে। ২০২০ সালে ৬ বছরের চুক্তিতে সিরি 'আ'র ক্লাব উদিনেসে যোগ দিলেও দুই মৌসুম যেতে না যেতেই বড় ক্লাবগুলো থেকে ডাক আসছে তার। এর মধ্যে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদই বাকিদের চেয়ে এগিয়ে তাকে দলে ভেড়ানোর বিষয়ে।

৭. জিওভান্নি লো সেলসো: ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যামের সঙ্গে ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে এই মিডফিল্ডারের। তবে গত মৌসুমটা তিনি ধারে খেলেছেন স্প্যানিশ ক্লাব ভিয়ারিয়ালে। মৌসুম শেষে এখন তার স্পার্সদের শিবিরে ফিরে আসার কথা তবে তার খেলায় সন্তুষ্ট স্প্যানিশ ক্লাবটি স্থায়ী চুক্তিতে কিনে নিতে চায় তাকে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর