শনিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৯   ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
বিজয়ের মাসকে ‘মুক্তিযোদ্ধা মাস’ ঘোষণার দাবি দেশে করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পাঁচ বছরের মধ্যে সারাদেশে বিদ্যুতের তার মাটির নিচে যাবে সারা দেশে পুলিশের পক্ষকালব্যাপী বিশেষ অভিযান শুরু কুষ্টিয়ায় খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি ঢাকায় অগ্নিসন্ত্রাসীদের বিশৃঙ্খলার লাইসেন্স দেয়া হবে না পদ্মা সেতুর সুফল পেতে শিল্পকারখানার প্রত্যাশা
১১৫৪

করোনাভাইরাসকে হারাতে ‘অ্যান্টিবডি’ আবিষ্কার বিজ্ঞানীদের

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২০  

বিশ্বের বেশির ভাগ দেশ চলমান মহামারি করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত। এ ভাইরাসে দ্রুত বেড়ে চলেছে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে ছড়িয়ে পড়ে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। এখন পর্যন্ত তা বিশ্বের ২১২ টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

এই ভাইরাসের ছোবলে এরইমধ্যে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে আমেরিকা ও ইউরোপের দেশ ইতালি, ব্রিটেন, স্পেন ও ফ্রান্স।

বিশ্বব্যাপী বিজ্ঞানীরা প্রাণপণ চেষ্টা করলেও এখনো পর্যন্ত এই ভাইরাসে কার্যকরী কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেননি। তবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা উঠেপড়ে লেগেছেন একটা ওষুধ বা ভ্যাকসিন তৈরিতে।

অবশেষে আশার বাণী শুনিয়েছেন নেদারল্যান্ডসের বিজ্ঞানীরা। বলছেন, পরীক্ষাগারে তারা এমন একটি ‘অ্যান্টিবডি’ তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন যেটা নভেল করোনাভাইরাসকে পরাস্ত করতে সক্ষম। কভিড-১৯ চিকিৎসা ও মহামারিটির বিস্তার রোধে এটা একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। 

সোমবার নেচার কমিউনিকেশনস জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বিজ্ঞানীদের আবিষ্কৃত পরীক্ষামূলক এই অ্যান্টিবডি কভিড-১৯ সম্পর্কিত রোগের চিকিৎসা এবং ভাইরাসটির সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে সক্ষম হবে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালগুলোতে এটা সত্যিই কাজ করছে কিনা সেটা নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন, অ্যান্টিবডি’র আবিষ্কারক দল নেদারল্যান্ডসের উট্রেচ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের বেরেন্ড-জান বোশ এবং সহকর্মীরা।

47D11 নামে পরিচিত এই অ্যান্টিবডি করোনাভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনকে লক্ষ্য করে আক্রমণ করে এবং এর স্পাইকগুলোকে একটি মুকুট দিয়ে মুড়ে এটিকে নিষক্রিয় করে দেয়। ফলে ভাইরাসটি নতুন কোষে প্রবেশ করার ক্ষমতা হারায়। উট্রেচ্টের পরীক্ষায়, এটি কভিড -১৯ এর জন্য দায়ী ভাইরাসকে কেবল পরাস্তই করেনি বরং একই ধরণের স্পাইক প্রোটিন দিয়ে সজ্জিত করোনার কাজিন সার্স ভাইরাসকেও পরাস্ত করেছে।

সূত্র: ব্লুমবার্গ

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর