শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২০ ১৪২৯   ১১ রজব ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
সুখসাগর পেঁয়াজ বীজ চাষে লাভবান হচ্ছেন মেহেরপুরের কৃষকরা দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন বেসরকারি হজ প্যাকেজ ঘোষণা, সর্বনিম্ন খরচ ৬,৭২,৬১৮ টাকা সেতুমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত ৪৮ বছর ধরে দেশে বিখ্যাত চুয়াডাঙ্গার ব্লাকবেঙ্গল গোট পেশাদারির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন
২৪

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পুরোপুরি বিদ্যুৎ ফিরল পাকিস্তানে

প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩  

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের পর অন্ধকারে ঢুবে যায় পুরো পাকিস্তান। এরপর দীর্ঘ ২৪ ঘণ্টা চেষ্টা শেষে পুরো পাকিস্তানে আবারও বিদ্যুৎ পরিসেবা চালু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির জ্বালানি মন্ত্রণালয়। গত কয়েক মাসের মধ্যে পাকিস্তানে এটিই সবচেয়ে ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়। খবর আল জাজিরা। 

গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পাকিস্তানে ১ হাজার ১১২টি গ্রিড সচল করা হয় হয়েছে স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান দেশটির জ্বালানি মন্ত্রী খুররাম দস্তগীর খান।  

এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, আগামী দিনে বিভিন্ন এলাকায় সীমিত পরিসরে বিদ্যুৎ বিভ্রাট হবে। কারণ কয়লা এবং পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো পুরোদমে ঠিক করতে সময় লাগবে। 

আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ৬ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট কয়লা বিদ্যুৎ এবং ৩ হাজার ৫০০ মেগাওয়াট পারমাণবিক বিদ্যুৎ সচল করা হবে। বিদ্যুতের এই প্লান্টগুলো সচল করা না পর্যন্ত শিল্প ক্ষেত্রেও পুরোপুরি বিদ্যুৎ সমস্যা দূর হচ্ছে না। 

সোমবার সকালে পাকিস্তানের জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয় দেখা দেয়। এর ফলে অফিস, আদালত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং হাসপাতাল, স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের প্রায় ২২ কোটি মানুষ বিদ্যুৎ হীন হয়ে পড়ে। 

এ ঘটনার পর মধ্যরাত থেকেই পাকিস্তানের বড় বড় শহরে বিদ্যুৎ আসতে শুরু করে। যার মধ্যে ছিল করাচি এবং লাহোর।

গত চার মাসের মধ্যে পাকিস্তানের এটি সবচেয়ে বড় দ্বিতীয় বিদ্যুৎ বিপর্যয়। ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকেই পাকিস্তানে বিদ্যুৎ বিপর্যয় শুরু হয়। 

কী কারণে পাকিস্তানে বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঘটেছে তার কারণ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন খুররাম দস্তগীর খান। সঙ্গে তিনি পাকিস্তানে জ্বালানি তেল ফুরিয়ে যাওয়ার খবর মিথ্যা বলে জানান। 

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর