বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭   ১২ শাওয়াল ১৪৪১

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
৫৫

হাত দিয়েই কি ঠেকানো যাবে করোনাভাইরাসকে?

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২৭ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাস নামক এক মরণব্যাধি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বে। আজ এদেশে তো কাল সে দেশে এর প্রকোপ বাড়ছে। সেইসঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। এখনো এই ভাইরাস ধ্বংসের প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি। তাইতো ব্যক্তিগত সুরক্ষার মাধ্যমেই এই রোগ থেকে বাঁচার পরামর্শ জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।  

এই করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে এখন সবাই মাস্ক ব্যবহার করছে। এর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে কারণ শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণমূলক এই ভাইরাসটি বায়ুবাহিত। তবে এই ভাইরাসে সংক্রমণের প্রধান ও প্রথম মাধ্যমটি হলো হাত। সবারই নিশ্চয় জানা আছে, হাতের মাধ্যমেই মুখে অতঃপর শরীরে প্রবেশ করে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। এজন্যই বলা হচ্ছে, হাত দিয়েই করোনাকে আটকানো সম্ভব। কেন এমনটা বলা হচ্ছে? চলুন তবে জেনে নেয়া যাক-

সম্প্রতি সিএনএনের এক প্রতিবেদনে আমেরিকান নিউরোসার্জন অ্যান্ড মেডিক্যাল রিপোর্টার ডঃ সঞ্জয় গুপ্তা জানিয়েছেন, অসুস্থ না হলে মাস্ক ব্যবহার করা উচিত নয়, যদিও এর অনেক গুরুত্ব রয়েছে। মাস্ক পরার সঙ্গে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংযোগ থাকলেও আপনি যদি ভুল নিয়মে তা ব্যবহার করেন তবে বিপদ আরো বাড়বে। 

তিনি আরো বলেন, করোনাভাইরাস থেকে বাঁচার সর্বোত্তম পণ্থা হলো সঠিক নিয়মে অর্থাৎ ২০ সেকেন্ড ধরে সাবান কিংবা হ্যান্ডওয়াশের সাহায্যে হাত ধোয়া। এতে করে আপনি সুরক্ষিত থাকবেন। যেখানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা থাকবে না সেখানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। আপনি যদি হাত পরিষ্কার না রাখেন তবে মুখে সেই হাত লাগলেই কিন্তু আপনি সংক্রমণের শিকার হবেন। এছাড়াও মাস্কের চারপাশে যথেষ্ট খোলা স্থান থাকে, সেসব অঞ্চল দিয়েও সহজেই করোনাভাইরাস প্রবেশ করতে পারে।

এজন্য হাতকে যত বেশি পরিষ্কার রাখা যাবে করোনার থাবা থেকে আপনি সুরক্ষিত থাকবেন। হাত দ্বারা মুখ স্পর্শ করা বন্ধ করুন, এমনকি মাস্কও নাকের উপর থেকে না সরিয়ে বরং কান থেকে খুলে ফেলুন। হাতে অবশ্যই গ্লাভস ব্যবহার করবেন এবং বাইরে থেকে ঘরে ফিরে তার উপর দিয়েই সাবান পানিতে ধুয়ে তারপর খুলবেন। গ্লাভস খুলে পুনরায় যথারীতি হাত ধুতে হবে। গ্লাভস অবশ্যই একবারের বেশি ব্যবহার করবেন না।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা