বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭   ১২ শাওয়াল ১৪৪১

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
৫৮৯

‘সীমা রেখা’র পর ‘শ্রীময়ী’

বিনোদন ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৭ মে ২০১৯  

পরপর দুটি জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়াল দর্শকদের উপহার দিয়েছেন ইন্দ্রাণী হালদার—‘গোয়েন্দা গিন্নি’ আর ‘সীমা রেখা’। এরপর কিছুটা বিরতি। তখন বলেছিলেন, ‘টানা কাজ করে আমি একেবারে ক্লান্ত।’ বিরতি শেষ, আবার ছোট পর্দায় দেখা যাবে তাঁকে। এবারও তিনি নাম ভূমিকায়। সিরিয়ালের নাম ‘শ্রীময়ী’। ইন্দ্রাণী হালদারকে পর্দায় তুলে ধরার দায়িত্ব নিয়েছেন ভারতের বাংলা সিরিয়ালের জনপ্রিয় ও সফল নাট্যকার ও নির্মাতা জুটি লীনা গঙ্গোপাধ্যায় ও শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়।

মেগা সিরিয়ালের গল্পে যে একঘেয়েমি দেখা যায়, তা থেকে দর্শকদের অন্য রকম বিনোদন দেয় ইন্দ্রাণী হালদারের ‘গোয়েন্দা গিন্নি’। ‘সীমা রেখা’ সিরিয়ালে ‘সীমা’ আর ‘রেখা’ দুই ভিন্ন মেরুর মানুষ। সেখানে ইন্দ্রাণী হালদার অভিনয় করেছেন দ্বৈত চরিত্রে। বড় পর্দা ও ছোট পর্দার এই জনপ্রিয় তারকার বয়স এখন ৪৮। লীনা গঙ্গোপাধ্যায় বললেন, ‘নতুন সিরিয়ালে ইন্দ্রাণীর চরিত্রটি মধ্যবয়স্ক একজন নারীর। এই বয়সের মহিলাকে কেন্দ্র করে কোনো গল্প সচরাচর ভাবা হয় না। টিভি সিরিয়ালগুলোতে ফর্মুলা মেনে গল্প সাজানো হয়। কিন্তু এবার আমরা নিরীক্ষা করছি।’ তিনি আরও বললেন, ‘একপর্যায়ে দেখা যাবে শ্রীময়ী শুধু সংসার নয়, সমাজের জন্যও কিছু করার কথা ভাবে। মেয়েদের জন্য কিছু করতে চায়।’ আর নিরীক্ষা নিয়ে বললেন, ‘সিরিয়াল দেখে যাঁরা উত্তরণের পথ খোঁজেন, শ্রীময়ী তাঁদের ইতিবাচক পথ দেখাবে।’

শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ‘নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা হয়তো সিরিয়ালটি দেখে মা-বাবাকে উপলব্ধি করতে পারবে।’

‘শ্রীময়ী’র গল্পের ভাবনা প্রসঙ্গে জানা গেছে, স্বামী, সন্তান আর সংসার নিয়েই জীবনের একটা সময় কাটে শ্রীময়ীর। তাঁর স্বামী করপোরেট জগতের মানুষ, বড় ছেলে ডাক্তার, মেয়ে স্কুলে চাকরি করছে। মা গাড়ি চালাতে পারেন না, ইংরেজিতে কথা বলতে পারেন না। তাই তাঁকে নিয়ে সমাজে চলতে তাদের সমস্যা হয়। তবে মাকে অনুভব করে ছোট ছেলে। মাকে বোঝার চেষ্টা করে। এখান থেকেই গল্প নতুন মোড় নেয়।

এই সিরিয়ালে শ্রীময়ীর স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করবেন সাহেব চট্টোপাধ্যায় আর তাঁদের পারিবারিক বন্ধু উষসী চক্রবর্তী। আগামী জুনে স্টার জলসায় প্রচার শুরু হবে নতুন সিরিয়াল ‘শ্রীময়ী’র।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা