বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯   ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে আসন সংকট হবে না : শিক্ষামন্ত্রী জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব নিজের বাল্যবিবাহ ঠেকানো চুয়াডাঙ্গার শ্রাবন্তী জিপিএ-৫ পেয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুষ্টিয়ার এক উপজেলাতেই ২৮টি অবৈধ ইটভাটা!
৯০

সাফজয়ী নিলুফা ইয়াসমীন নীলা কুষ্টিয়ার গর্ব

প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর ২০২২  

ইতিহাসগড়া নারী ফুটবলাররা এখন দেশের উজ্জ্বল মুখ। দেশজুড়ে প্রশংসিত এই মেয়েরা নিজ নিজ জেলায় পেয়েছেন উষ্ণ সংবর্ধনা। এই তারকাদের মধ্যে রয়েছেন কুষ্টিয়ার মেয়ে নিলুফা ইয়াসমীন নীলা। কিন্তু নীলার এই তারকা হয়ে ওঠার পেছনের গল্পটা বড্ড বিষাদের।

নীলার বাড়ি কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে। মাত্র আড়াই বছর বয়সেই তার মাকে ফেলে চলে যায় রিকশাচালক বাবা। তখন তার অন্য বোনটির বয়স মাত্র দেড়মাস। মায়ের নিদারুণ কষ্ট আর ত্যাগে আজ তিনি নীলা হয়ে উঠেছেন।

কুষ্টিয়া শহরের চাঁদ সুলতানা স্কুল থেকে এসএসসি পাশ করার পর মিরপুর উপজেলার আমলা সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন নিলুফা। পরে খেলোয়াড় কোটায় ভর্তি হন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। বর্তমানে সেখানেই অধ্যয়ন করছেন।

রিকশাচালক বাবা তার মাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার সময় মা বাছিরন আক্তার দুই মেয়ে নিয়ে চোখে-মুখে অন্ধকার দেখেন। সাহস বুকে নিয়ে মা বাছিরন নিলুফারের নানা বাড়ি কুষ্টিয়া শহরের থানাপাড়া এলাকায় কুঠিপাড়া চরে আশ্রয় নেন। তিনি শহরের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সামান্য বেতনে চাকরিও শুরু করেন।

মায়ের ইচ্ছে ছিলো মেয়ে দুটোকে লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষের মত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলবেন। নিলুফা ছোট বেলা থেকেই খেলাধুলায় পারদর্শী ছিলেন। স্কুলে পড়ার সময় থেকেই সে নানা খেলায় সাফল্য দেখিয়েছেন। উচ্চ লাফ, দৌড়সহ প্রায় সব ধরনের খেলায় পারদর্শিতায় নিলুফার মা বাছিরন মেয়েকে ক্রীড়াবিদ হিসেবে তৈরির ইচ্ছা পোষণ করেন। 

তিনি মেয়েকে উৎসাহ ও সাহস দিতে থাকেন। কুসংস্কারাচ্ছন্ন সমাজে নিলুফাকে খেলোয়াড় বানাতে তার পরিবারকে নানা নেতিবাচক কথাও শুনতে হয়েছে। সেই নেতিবাচক কথা শুনে বেড়ে ওঠা নীলা আজ হিরো। তাকে বরণ করে নিয়ে জেলাবাসী।

কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, নিলা শুধু আমাদের কুষ্টিয়ার নয়, দেশের গর্ব। আজকের এই অনুষ্ঠানের মধ্যমনি নিলা আমাদের নারী সমাজের পথ প্রদর্শক। অবহেলিত নারী সমাজের আলোকবার্তা। নিলাকে অনুপ্রেরণা মনে করে কুষ্টিয়ার নারী ফুটবল এগিয়ে যাবে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলম নীলার মাকে ফুটবল খেলার প্রতি উৎসাহ দেওয়ায় ধন্যবাদ দিয়েছেন। 

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর