বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯   ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে আসন সংকট হবে না : শিক্ষামন্ত্রী জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব নিজের বাল্যবিবাহ ঠেকানো চুয়াডাঙ্গার শ্রাবন্তী জিপিএ-৫ পেয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুষ্টিয়ার এক উপজেলাতেই ২৮টি অবৈধ ইটভাটা!
৩৪

সন্তানকে ছোট ছোট দায়িত্ব ভাগ করে নিতে শেখান

লাইফষ্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০২২  

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিটি শিশুর মানসিক এবং শারীরিক ভাবে পরিবর্তন আসা স্বাভাবিক। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাভাবিক এই নিয়মের সঙ্গে সঙ্গে ছোট ছোট দায়িত্ব নিতে না শেখালে বড় হয়ে দায়িত্ব পিছপা হবে। তাই ছোট থেকেই তাকে দায়িত্ব নিতে শেখাতে হবে। বকে বা ভয় দেখিয়ে নয়, ছোট থেকে বুঝিয়ে দায়িত্ব নিতে শেখান।

পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে শেখান
কোনও ঘটনার অভিমুখ বুঝে কথা শেখান। তার নেয়া প্রতিটি সিদ্ধান্তের ফলাফল কী হতে পারে, আগে থেকে তার আন্দাজ করে নিয়েই কাজে নামতে শেখান। শুধু পড়াশোনায় ভালো ফল করলেই যে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে তেমনটা কিন্তু নয়। বরং যে পরিবেশে সে বেড়ে উঠছে, সেখান থেকে উদাহরণ নিয়ে শিখতে পারলে তার অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার পূর্ণ হয়ে উঠবে।

আগে শোনা, তারপর ভাবা
অন্যের কথা শুনে, তার পর সেই বিষয়ে ভাবতে শেখান। ভালো শ্রোতা না হলে ঘটনার ভালো-মন্দ বিচার করার ক্ষমতা একোবারেই তৈরি হবে না।

হেসেই কাজ হাসিল করা যায়
চিৎকার না করে মিষ্টি মুখেও অনেক অসম্ভব কাজ সহজেই করে ফেলা যায়। চিৎকার করে হয়তো আপনার সন্তান অন্যের নজর ঘোরাতে পারবে, কিন্তু তার সম্পর্কে ধারণা সঠিক না-ও হতে পারে।

অন্য ভাবে ভাবতে শেখান
অভিভাবক হিসেবে আপনি যা শেখাবেন, শিশুরা তাই শিখবে। যে ধরনের কথা বললে ঝগড়া বা বিবাদের সূত্রপাত হতে পারে, সেই ধরনের কথা না বলে ঐ একই কথা অন্যভাবে বলা যায় কিনা, ভেবে দেখতে শেখান।

ছোট ছোট দায়িত্ব ভাগ করে নিন
সন্তান সব সময়েই মা-বাবার কাছে আদরের। তাই বলে তার সব কাজ নিজে হাতে করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবেন না। রুটিন দেখে নিজের স্কুলের ব্যাগ গোছানো, নিজের কাজ দায়িত্ব নিয়ে করা, বাড়িতে গাছ থাকলে নিয়মিত জল দেওয়া- এই ধরনের ছোট ছোট কাজের দায়িত্ব নিতে অভ্যাস করান।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা