বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯   ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে আসন সংকট হবে না : শিক্ষামন্ত্রী জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব নিজের বাল্যবিবাহ ঠেকানো চুয়াডাঙ্গার শ্রাবন্তী জিপিএ-৫ পেয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুষ্টিয়ার এক উপজেলাতেই ২৮টি অবৈধ ইটভাটা!
১০৩

সকালের খাওয়ার আগে আগে নাকি পরে? কখন দাঁত মাজলে উপকার

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০২২  

সকালে ঘুম থেকে উঠে- ঘুম ঘুম চোখে অনেকেই চায়ের কাপে চুমুক দেন। চায়ের সঙ্গে থাকে বিস্কুটও খান। এরপর ঘুম কাটলে বিছানা থেকে নামেন। ডেইলি রুটিনের ছক ধরে অফিসে বেরোনোর তাড়া থাকলে একেবারে স্নান করতে গিয়ে দাঁত মেজে নেন। দাঁত না মেজে কোনও খাবার খাওয়া কি স্বাস্থ্যকর?

চিকিৎসকদের মতে, দাঁত মাজার নির্দিষ্ট কোনো সময় নেই। কিন্তু নিয়ম করে দাঁত মাজাটা জরুরি। দাঁতের খেয়াল রাখতে কখন দাঁত মাজছেন, সেটা ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। অন্ত্রের পর মুখগহ্বর হল জীবাণুর আতুঁড়ঘর। দাঁতের ফাঁকে খাবারের অবশিষ্ট অংশ জমা হয়ে যায়। দীর্ঘদিন খাবারের টুকরো জমতে জমতে ব্যাক্টেরিয়ার জন্ম হয়। যা মুখের ভিতরে সংক্রমণজনিত সমস্যা ডেকে আনে। দাঁতের ক্ষয় হয়। মাড়ি থেকে রক্তপাত হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) অনুসারে, সারা দিনে ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই বার দাঁত মাজা উচিত। সকালে এক বার এবং সন্ধ্যায় আর এক বার। কিংবা রাতের খাবার খাওয়ার পরেও দাঁত মেজে নিতে পারেন।

আসলে খাবার খাওয়ার পরই দাঁত মেজে নেয়া ভাল। কিন্তু বাস্তবে তা সম্ভব হয় না। তবে প্রতি বার সম্ভব না হলেও, অন্তত সকাল ও রাতে দু’বার দাঁত মাজতে হবে। কিন্তু ঘুম থেকে উঠেই দাঁত মাজার বদলে সকালের জলখাবার খাওয়ার পর দাঁত মাজা অনেক বেশি বিজ্ঞানসম্মত। পাশাপাশি, রোজ নৈশভোজের পর দাঁত মেজে নেওয়াও আবশ্যিক। কিন্তু যারা দিনে এক বারই দাঁত মাজেন?

চিকিৎসকরা বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে দাঁত মাজার নিয়ম মূলত উপকারী নয়। বরং রাতে খাওয়ার পর দাঁত মাজা অনেক বেশি জরুরি। কারণ আর কিছুই নয়, রাতে খাওয়াদাওয়ার পর দাঁত না মাজলে বেশ কয়েক ঘণ্টা ধরে মুখে জীবাণু জমতে থাকে। দাঁতেরও যা ক্ষতি হওয়ার হয়েই যায়। কাজেই তার পর সকালে উঠে দাঁত মাজলেও বিশেষ লাভ হয় না। রাতে খাওয়ার পর দাঁত মেজে ঘুমাতে যেতে হবে। সকালে উঠে দাঁত মাজলেও ভালো। কিন্তু তা যদি না-ও পারেন, তবে শুধু পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিলেই হবে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা