সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১   মাঘ ৪ ১৪২৭   ০৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
চুয়াডাঙ্গায় সুইসাইড নোট লিখে এক যুবকের আত্মহত্যা চুয়াডাঙ্গায় ফের শৈত্যপ্রবাহ ইবির প্রশাসনিক পদে নতুন মুখ মুজিবনগর টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নতুন ভবনের উদ্বোধন কুষ্টিয়ায় আরও ২ জনের করোনা শনাক্ত
৩৪

লাইভে এসে তারেক জিয়াকে নিয়ে টিটকারি করলেন ফখরুল!

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

এবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ওপর নিজের যত রাগ ছিল তা কৌশলে উগরে দিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সোমবার বিএনপির এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভার লাইভে তারেক রহমানের উপস্থিতিতে তাকে চেয়ারম্যান সাব বলে সম্বোধন করে টিটকারি করেন মির্জা ফখরুল। যা তারেকসহ বিএনপির অনেক শীর্ষ নেতার কাছে চরম ধৃষ্টতা বলে মনে হয়েছে।

বিশেষ করে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এখনো জীবিত থাকা অবস্থায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকা তারেককে চেয়ারম্যান সাব বলার বিষয়টিকে ব্যঙ্গ করা হিসেবেই দেখছেন দলের স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য।

এবিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘দলের সর্বোচ্চ চেয়ারে বসে বিদেশ থেকে কত মেধা দিয়ে যিনি দল চালাচ্ছেন সেই তারেক রহমানকে নিয়ে ফখরুল সাহেব টিটকারি করে চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন। খালেদা জিয়া বেঁচে থাকা অবস্থায় চেয়ারপারসনের পদের বিষয়ে ব্যঙ্গ করা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের সামিল। অনতি বিলম্বে মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন তারেক রহমান।’

এদিকে ঘটনার বিস্তারিত জানতে লণ্ডনে অবস্থানরত বিএনপির এক নেতা বলেন, সোমবারের ভার্চুয়াল আলোচনা সভার পর তারেক রহমানকে চরম অসন্তুষ্ট অবস্থায় দেখেছি। সেসময় মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে এনে তারেক চরম ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতেও দেখেছি।’

এপ্রসঙ্গে ভার্চুয়াল আলোচনা সভাতে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘তারেক রহমানের ওপর যে ফখরুল চরম বিরক্ত তা আজকের আলোচনা সভাতে উঠে এসেছে। ফখরুল যে দল চালাতে ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে তা তারেক রহমান নিজেও উপলব্ধি করতে পেরেছেন বলেই আমার বিশ্বাস।’

তারেক রহমানকে নিয়ে মন্তব্য করার বিষয়ে একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, ‘ফখরুল তো ব্যঙ্গ করে উপযুক্ত কাজই করেছেন। মূলত তারেক রহমানের মতো একজন দুর্নীতিবাজকে চেয়ারম্যান হিসেবে আখ্যায়িত করাও চরম পর্যায়ের দুর্নীতি। আর একারণেই বিএনপি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে দলের সিনিয়র নেতারা।’

উল্লেখ্য, সোমবার এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকা তারেককে চেয়ারম্যান সাব বলে ডেকে এক উত্তপ্ত পরিবেশ তৈরি করেন মির্জা ফখরুল। যার জন্য মহাসচিবের পদ থেকে ফখরুলকে বহিষ্কার করা হতে পারেও বলে জানিয়েছে তারেক রহমান।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর