বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
১২০

মাটি থেকে উৎপাদন হবে অক্সিজেন!

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২০  

এক সময় পৃথিবীতে ছিলো না গাছের অস্তিত্ব। তখন বায়ুমণ্ডলে ছিলো কার্বন ডাই অক্সাইড এবং বিভিন্ন বিষাক্ত গ্যাস। অনেকেই বিশ্বাস করেন, উদ্ভিদের উদ্ভব হওয়ার পর অক্সিজেন উৎপাদন শুরু হয় এবং অনেক বেশি পরিমাণে অক্সিজেন দখল করে বায়ুমণ্ডল।

বর্তমানে পৃথিবীতে গাছের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। এজন্য অক্সিজেন সংকটের কথা বলা হচ্ছে। তাই অক্সিজেনের বিকল্প উৎস সন্ধান করছেন বিজ্ঞানীরা।

বিশ্বব্যাপী অক্সিজেনের বিকল্প উৎস নিয়ে বিজ্ঞানীদের এ অনুসন্ধানের মধ্যে সুখবর দিয়েছেন চট্টগ্রামের প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একদল শিক্ষার্থী।

তাদের উদ্ভাবিত কৌশলে বলা হচ্ছে- শুধু গাছ নয়, মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদন করা সম্ভব। উদ্ভাবিত কৌশলের সুবিধা হচ্ছে, এটি কাজে লাগিয়ে যেকোনো ধরনের মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদন সম্ভব হবে।

ইতোমধ্যে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির সিনটেক্স অ্যারর টিমের এ কৌশলটি নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ- ২০১৯ প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার পেয়েছে। পাশাপাশি ‘মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদন’ শিরোনামের কৌশলটি নাসা স্পেসের ওপেন ডাটাবেজে জমা পড়েছে।

সিনটেক্স অ্যারর টিমের সদস্যরা।প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান তৌফিক সাইদ ও বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিনহাজ হোসাইনের তত্ত্বাবধানে সিনটেক্স অ্যারর টিম কৌশলটি উদ্ভাবন করে।

টিমের সদস্যরা হচ্ছেন- কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী অভিষেক ধর, শুভ কর্মকার, সুস্ময় সেন গুপ্ত ও রিদওয়ান তাসমিয়াহ।

সিনটেক্স অ্যারর টিমের সদস্যরা জানিয়েছেন, মাটির একটি উপাদান হচ্ছে ফেরাস অক্সাইড। তাদের কৌশলে মূলত এ উপাদানটি ব্যবহার করা হচ্ছে। যেটিকে ৯৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় গরম করা হলে দুটি উপাদান পাওয়া যায়। সেগুলো হচ্ছে- অক্সিজেন ও আয়রন।

...টিমের সদস্য শুভ কর্মকার বলেন, দূষণের কারণে অনেক ভূমি দুষিত হয়ে যাচ্ছে, যেখানে নতুনভাবে গাছ জন্মাচ্ছে না। এ ধরনের এলাকায় অক্সিজেনের যোগান দিতে এ কৌশলটি প্রয়োগ করা যেতে পারে।

তিনি বলেন, কৌশল উদ্ভাবনে আমরা মঙ্গল গ্রহের মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদনের ধারণা গ্রহণ করেছি। তবে এ কৌশল প্রয়োগে কিছু প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। এটি প্রয়োগের জন্য যে ধরনের ল্যাব দরকার, সেরকম ল্যাব আমাদের দেশে নেই।

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান তৌফিক সাইদ বলেন, যে হারে অক্সিজেনের যোগান কমছে তাতে বিকল্প অক্সিজেনের উৎসের সন্ধান জরুরি। সিনটেক্স অ্যারর টিমের কৌশলটি সময় উপযোগী।

তিনি বলেন, এর আগে মঙ্গলগ্রহের মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদন কৌশল উদ্ভাবন করা হয়। তবে পৃথিবীর মাটি থেকে অক্সিজেন উৎপাদন কৌশল এর আগে উদ্ভাবন হয়নি। এ কারণে নাসা এই কৌশলটি তাদের ডাটাবেইজে সংগ্রহ করেছে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর