বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৮   ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
রূপান্তরে বাংলাদেশ উত্তরণে বাংলাদেশ দুটি বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্পে ২৩ হাজার কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে জাপান শতবর্ষ উদযাপনে বর্ণিল সাজে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যশোরে আনসার-ভিডিপি’র পতাকা র‌্যালি করোনা বাড়লে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবার বন্ধ হবে: প্রধানমন্ত্রী ভারত-পাকিস্তান থেকে নানা সূচকে এগিয়ে বাংলাদেশ
৮৪

বিবিসির তথ্যচিত্র নিয়ে রাজপরিবারের ক্ষোভ, ভিত্তিহীন দাবি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২১  

বিবিসির একটি তথ্যচিত্রের সমালোচনা করেছেন ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্যরা। তারা যৌথ বিবৃতিতে এই তথ্যচিত্রকে ভিত্তিহীন ও অতিরঞ্জিত বলে দাবি করেছেন। এ তথ্যচিত্র প্রচারের পর রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ, প্রিন্স চার্লস ও উইলিয়াম ক্ষুব্ধ হয়েছেন। প্রচারের আগে রাজপরিবারকে এ তথ্যচিত্র দেখাতে অস্বীকৃতি জানায় বিবিসি।

বিবিসির ওই তথ্যচিত্রে প্রিন্স হ্যারি ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেল রাজপরিবারের দায়িত্ব ছাড়ার আগে গণমাধ্যম সামলানোর দায়িত্ব নিয়ে নেপথ্যের ঘটনা দেখানো হয়।

হ্যারি এবং তার বড় ভাই উইলিয়াম কীভাবে গণমাধ্যম সামলেছিলেন তা নিয়ে দ্য প্রিন্সেস অ্যান্ড দ্য প্রেস শিরোনামের তথ্যচিত্রে আলোচনা করা হয়েছে। দুই পর্বের তথ্যচিত্রের প্রথম পর্ব স্থানীয় সময় সোমবার রাতে প্রচার করা হয়।
এই তথ্যচিত্রে প্রিন্স হ্যারিকে গণমাধ্যমের প্রতি বিরূপ মনোভাব প্রকাশ করতে দেখা যায়। এখানে দেখানো হয় ২০১৬ সাল থেকে মার্কিন অভিনেত্রী মেগানের সঙ্গে ডেটিং শুরু করার পরে হ্যারি এবং তার বড় ভাই উইলিয়াম কীভাবে গণমাধ্যম সামলেছিলেন। প্রাসাদ কর্মীদের ওপর মেগানের কথিত উত্পীড়নের বিষয়েও তথ্যচিত্রে আলোচনা করা হয়েছে।

বাকিংহাম প্যালেস, ক্লিয়ারেন্স হাউস ও কেনসিংটন প্যালেসের যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, সুস্থ গণতন্ত্রের জন্য একটি মুক্ত ও দায়িত্বশীল সংবাদপত্র অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু প্রায়ই অজানা সূত্র থেকে ভিত্তিহীন ও অতিরঞ্জিত দাবি করা হয় এবং তথ্য হিসেবে তা উপস্থাপন করা হয়। কিন্তু যখন বিবিসিসহ অন্য কেউ তা বিশ্বাসযোগ্যতা দেয়, তখন তা হতাশাজনক। রাজপরিবারের আইনজীবীরা বিবিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রস্তুত বলে জানা গেছে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর