শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২০ ১৪২৯   ১১ রজব ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
সুখসাগর পেঁয়াজ বীজ চাষে লাভবান হচ্ছেন মেহেরপুরের কৃষকরা দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন বেসরকারি হজ প্যাকেজ ঘোষণা, সর্বনিম্ন খরচ ৬,৭২,৬১৮ টাকা সেতুমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত ৪৮ বছর ধরে দেশে বিখ্যাত চুয়াডাঙ্গার ব্লাকবেঙ্গল গোট পেশাদারির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন
২২

বর টাকা গুনতে না পারায় বিয়ে ভেঙে দিল কনে

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩  

বর টাকা গুনতে না পারায় বিয়ের মাঝপথেই তা বন্ধ করে দিলেন কনে। এমনটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফারুখাবাদে।

জানা গেছে, পুরোহিতের সন্দেহ ছিল বর মানসিক ভারসাম্যহীন। সেই সন্দেহের কথা তিনি কনের পরিবারকে জানান। এরপর বর আদৌ মানসিক ভারসাম্যহীন কিনা, তা জানতে তাকে ১০ টাকার ৩০টি নোট গুনতে দেয় কনে পক্ষ। তবে বর নোট গুনতে ব্যর্থ হওয়ায় হতবাক হয়ে যায় কনের পরিবার। এরপর বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে মঞ্চ থেকে উঠে পড়েন কনে।

বিয়ে বাতিলের পর দুইপক্ষের মধ্যে শুরু হয় তুমুল ঝগড়া। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। তারা দুইপক্ষের মধ্যে সমস্যা মিটমাট করার চেষ্টা করেন। কিন্তু কোনোভাবেই বিয়ে করতে রাজি হননি কনে। ফলে বাধ্য হয়েই খালি হাতে ফিরে যেতে হয় বরকে। 

কনের ভাই মোহিত জানান, তাদের এক নিকটাত্মীয় বিয়ের জন্য ছেলে ঠিক করেছিলেন। ঐ আত্মীয়ের ওপর ভরসা থাকায় তারা বিয়ের আগে বরকেও দেখেননি। তবে বিয়ের অনুষ্ঠানে পুরোহিত বরের আচরণ দেখে তার সন্দেহের কথা জানান। 

মোহিত বলেন, বর স্বাভাবিক কিনা তা জানার জন্য একটি সহজ পরীক্ষা নেয়া হয়। বরকে ৩০টি ১০ টাকার নোট গুনতে দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি গুনতে পারেননি। তাই বোন বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। 

উত্তর প্রদেশের পুলিশ কর্মকর্তা অনিল কুমার চৌবে বলেন, এ ঘটনায় কোনো মামলা করা হয়নি।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর