শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২০ ১৪২৯   ১১ রজব ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
সুখসাগর পেঁয়াজ বীজ চাষে লাভবান হচ্ছেন মেহেরপুরের কৃষকরা দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন বেসরকারি হজ প্যাকেজ ঘোষণা, সর্বনিম্ন খরচ ৬,৭২,৬১৮ টাকা সেতুমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত ৪৮ বছর ধরে দেশে বিখ্যাত চুয়াডাঙ্গার ব্লাকবেঙ্গল গোট পেশাদারির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন
৩০

ফুকুশিমা পারমাণবিক কেন্দ্রের পানি সাগরে ছাড়বে জাপান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২৩  

এ বছর প্রায় ১০ লাখ টন তেজস্ক্রিয় পানি সাগরে ছাড়বে জাপান সরকার। ভূমিকম্প ও সুনামিতে ধ্বংস হয়ে যাওয়া ফুকুশিমা পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের তেজস্ক্রিয় পানিই শোধন করে সমুদ্রে নিষ্কাশন করা হচ্ছে।

ফুকুশিমা কেন্দ্র পরিচালনা কর্তৃপক্ষ বলছে, পানি শোধনের পর তাতে তেজস্ক্রিয় কণার মাত্রা জাতীয় মানদণ্ড অনুযায়ী ঠিক আছে। খবর জাপান টাইমসের।

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থাও (আইএইএ) শোধিত এই পানি সাগরে ছাড়া নিরাপদ উল্লেখ করে প্রস্তাবটি অনুমোদন করেছে। তবে প্রতিবেশী দেশগুলো বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

শুক্রবার জাপানের মন্ত্রী হিরোকাজু মাতসুনো বলেছেন, আমরা এ বছরের বসন্ত কিংবা গ্রীষ্মেই পানি সমুদ্রে ফেলব বলে আশা করছি। তবে তার আগে আইএইএ থেকে চূড়ান্ত একটি রিপোর্ট আসার অপেক্ষায় থাকবে সরকার।

প্রতিবেশী দেশগুলোসহ স্থানীয় জেলে সম্প্রদায় তেজস্ক্রিয় পানি সাগরে ছাড়ার বিরোধিতা করছে। জেলেদের আশঙ্কা, এতে ওই অঞ্চলের সামুদ্রিক খাবারের ওপর আস্থা হারাবে মানুষ।

২০১১ সালের ১১ মার্চ ভয়াবহ এক ভূমিকম্প এবং এ থেকে সৃষ্ট সুনামির বিশাল জলোচ্ছ্বাসে জাপানের ফুকুশিমায় অবস্থিত বিদ্যুৎকেন্দ্রটির চারটি পারমাণবিক চুল্লি প্লাবিত হয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

ফুকুশিমার ওই বিপর্যয়কে তুলনা করা হয় ইউক্রেনের চেরনোবিল পারমাণবিক দুর্ঘটনার সঙ্গে। দুটি বিপর্যয়েই প্রকৃতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জীবন বিপন্ন হওয়ায় আশপাশের এলাকা থেকে লাখো মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়।  

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর