সোমবার   ১৫ জুলাই ২০২৪   আষাঢ় ৩০ ১৪৩১   ০৭ মুহররম ১৪৪৬

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
দেশের চার বিভাগে ভারী বর্ষণের আভাস জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পেল ৭৭ প্রতিষ্ঠান ব্যবসা-বাণিজ্য যাতে সহজ হয় সর্বদা সেই কাজই করছি: প্রধানমন্ত্রী দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রপ্তানি বাণিজ্য প্রসারের বিকল্প নেই দেশে কোনো মানুষ অতিদরিদ্র থাকবে না: শেখ হাসিনা
২৫

পলাতক আসামিদের চেহারা পাল্টে দেয় যে হাসপাতাল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০২৪  

প্লাস্টিক সার্জারি করে পলাতক আসামিদের চেহারা পাল্টে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফিলিপাইনের কয়েকটি অবৈধ হাসপাতালের বিরুদ্ধে। মূলত গ্রেফতার এড়াতে সাহায্য করার জন্য পলাতক আসামি এবং স্ক্যাম সেন্টারের কর্মীদের প্লাস্টিক সার্জারি পরিষেবা দিচ্ছে হাসপাতালগুলো।

পুলিশের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, মে মাসে ম্যানিলার দক্ষিণ শহরতলীতে পুলিশ অভিযান চালানোর পর এই ধরনের দুটি অবৈধ হাসপাতালের সন্ধান পাওয়া যায়। এগুলো ‘আগামী সপ্তাহে’ বন্ধ করা হতে পারে।

দুই মাস আগে পাসে সিটির একটি হাসপাতাল থেকে হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট টুল, ডেন্টাল ইমপ্লান্ট এবং ত্বক সাদা করার আইভি ড্রিপ জব্দ করা হয়।

প্রেসিডেন্সিয়াল অ্যান্টি অর্গানাইজড ক্রাইম কমিশনের (পিএওসিসি) মুখপাত্র উইনস্টন জন ক্যাসিও বলেছেন, আপনি এগুলো দিয়ে একজন ব্যক্তিকে সম্পূর্ণ নতুন রূপ দিতে পারবেন।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নজরদারির অধীনে থাকা দুটি অবৈধ হাসপাতাল পাসে-এর অন্য হাসপাতালগুলোর তুলনায় চারগুণ বড় বলে মনে করা হচ্ছে। একটি হাসপাতাল থেকে তিনজন চিকিৎসকে গ্রেফতার করা হয়েছে, যাদের দু’জন ভিয়েতনামের এবং একজন চীনের নাগরিক। এছাড়া একজন চীনা ফার্মাসিস্ট এবং একজন ভিয়েতনামী নার্সকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ একটি হেমোডায়ালাইসিস মেশিনও খুঁজে পেয়েছে হাসপাতালে।

ক্যাসিও বলেন, এগুলো বাইরে থেকে নিয়মিত ক্লিনিকের মতো দেখায়, কিন্তু একবার আপনি প্রবেশ করলে, তাদের প্রযুক্তির ধরন দেখলে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন। এই হাসপাতালগুলো গ্রাহকের সঠিক পরিচয়পত্র চায় না.. আপনি পলাতক হতে পারেন, অথবা আপনি ফিলিপাইনে একজন অবৈধ বাসিন্দাও হতে পারেন।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর