মঙ্গলবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২২   মাঘ ৪ ১৪২৮   ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
পোশাক রপ্তানি: বড় বাজারে বড় প্রবৃদ্ধি আশা জাগাচ্ছে আরও ৯৬ লাখ ফাইজারের টিকা এলো যুক্তরাষ্ট্র থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের তথ্য গুজব: শিক্ষা মন্ত্রণালয় জীবননগরে কৃষি কাজে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ‘রাইস ট্রান্সপ্লান্টার’ গড়াই নদী খনন প্রকল্পে সুফল পাচ্ছে কুষ্টিয়ার বাসিন্দারা চুয়াডাঙ্গায় দুর্বৃত্তরা কেটে ফেলেছে ২৬টি কমলাগাছ মেহেরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুজনের কারাদণ্ড
১৮৯

দৌলতপুর হানাদার মুক্ত দিবস আজ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০২১  

আজ ৮ ডিসেম্বর কুষ্টিয়ার দৌলতপুর মুক্ত দিবস। একাত্তরের এই দিনে দৌলতপুরে উড়তে থাকে বিজয়ের পতাকা। যা এই উপজেলার ৩২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয় ।

তৎকালীন দৌলতপুর থানায় পাক হানাদারদের সাথে সবচেয়ে বড় যুদ্ধ সংগঠিত হয় ৯ নভেম্বর থেকে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত টানা তিনদিন আদবাড়িয়া ইউনিয়নের ব্যাঙগাড়ী মাঠে। সেখানে ৪ জন মুক্তিযোদ্ধা এবং ২ জন মিত্রবাহিনীর সদস্য শহীদ হন। এ যুদ্ধে প্রায় ৩ শতাধিক পাকসেনা নিহত হয়।

এরপর ২৬ নভেম্বর পিয়ারপুর ইউনিয়নের শেরপুর মাঠে পাকহানাদারদের সাথে আরেকটি বড় যুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব শহীদ হন। এ যুদ্ধে প্রায় শতাধিক পাকসেনা ও প্রায় দুই শতাধিক আলবদর ও রাজাকার নিহত হওয়ার পর পাকসেনা ও রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধাদের তোপের মুখে কোনঠাসা হয়ে পড়ে। এবং প্রাণ বাঁচাতে দৌলতপুর থানার অভ্যন্তরে আশ্রয় নেয়।

অবশেষে ৭ ডিসেম্বর রাতের অন্ধকারে পাকসেনারা পালিয়ে কুষ্টিয়ার শহরতলী জগতি ও বটতৈল এলাকায় আশ্রয় নেয়। ১৯৭১ এর আজকের এইদিনে বীর মুক্তিযোদ্ধারা দৌলতপুরে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলনের মাধ্যমে দৌলতপুর কে শত্রুমুক্ত ঘোষণা করেন। দিবসটি উপলক্ষ্যে দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসুচীর আয়োজন করা হয়েছে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর