বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯   ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পাওয়ায় শুভেচ্ছায় সিক্ত ইবি ভিসি জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ নিয়ে সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত হজের নিবন্ধনের সময় বাড়লো
১৫

দেশে তেলবীজের উৎপাদন বাড়ানোর নির্দেশ কৃষিমন্ত্রীর

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২ মে ২০২২  

বিশ্ববাজারে সংকটের কারণে দেশেও বেড়েছে ভোজ্যতেলের দাম। তবে দাম বাড়লেও ব্যবসায়ীদের অতি মুনাফালোভী মনোভাবের কারণে দেশের কোথাও কোথাও মিলছে না সয়াবিন তেল। যদিও দেশে ভোজ্যতেলের বিকল্প তেলবীজ উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ সম্ভব। এ অবস্থায় বিকল্প তেলবীজের উৎপাদন বাড়াতে গবেষণা ও পরিকল্পনায় কাজ করতে কৃষি কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

বুধবার (১১ মে) সকালে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) মিলনায়তনে আয়োজিত এক কর্মশালায় মন্ত্রী এ নির্দেশনা প্রদান করেন। ‘কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের সাম্প্রতিক অর্জন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা’ শীর্ষক কর্মশালার আয়োজন করে কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন।

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী বলেন, তেল (ভোজ্যতেল) আমদানিতে দুই বিলিয়ন ডলারের বেশি খরচ হচ্ছে। ডাল আমদানি করতে হচ্ছে ৬ থেকে ৭ লাখ টন, তাতেও প্রচুর অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে। আমাদের দেশে পটুয়াখালীসহ বিভিন্ন চরাঞ্চলের ডাল ও তেল জাতীয় ফসলের উৎপাদন হচ্ছে। আরও কোথায় কোথায় এসব ফসলের উৎপাদন করা যায় এসব খুঁজে বের করতে হবে। একই সঙ্গে গবেষণা বাড়াতে হবে। বিশেষ করে তেল উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য কী করা যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বলেন, ভোজ্যতেলের ৯০ শতাংশই আমদানি করতে হয়। আমরা আমদানির অর্ধেকও উৎপাদন করতে পারি কি না সেটা দেখতে হবে। আমাদের সে সক্ষমতা রয়েছে। কোথায় কোথায় সরিষার উৎপাদন বাড়ানো যায় সেটা নির্ধারণ করতে হবে। এক্সটেনশন সিস্টেম ডেভেলপ করতে হবে।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এসব পণ্যের উৎপাদান বাড়াতে হলে ভালো মানের গবেষণার দরকার। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় সরকারের টাকা দিয়ে গবেষণা করছে, সেগুলো কী মানের গবেষণা হচ্ছে, কোন কোন জার্নালে প্রকাশিত হচ্ছে, সেগুলো মানসম্পন্ন কি না এ বিষয়গুলো দেখা হবে। শুধু গবেষণা করলে হবে না, মাঠ পর্যায়ে তার কী ফল বয়ে আনছে সে বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে।

পেঁয়াজের উদাহরণ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, কিছুদিন আগেই পেঁয়াজের ভরা মৌসুমে কৃষকরা দাম পাচ্ছিলেন না। এখন একটু দাম বৃদ্ধির কারণে কৃষকরা একটু মূল্য পাচ্ছেন। কৃষককে দাম পাওয়ার জন্যই আমদানি কিছুটা শিথিল রাখা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম বলেন, দেশে এখনো গবেষণা সরকারি পর্যায়েই সীমাবদ্ধ। বিদেশে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতেরও ভূমিকা আছে। তাই বেসরকারি খাতেও গবেষণা বাড়াতে হবে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর