মঙ্গলবার   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৬   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

৪৩

দামুড়হুদায় ব্যাটারিচালিত যানের আলোয় জনদুর্ভোগ চরমে

নিজস্ব প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৯ মে ২০১৯  

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় ব্যাটারি চালিত অবৈধ যান পাঁখিভ্যান-ইজিবাইকের হেডলাইটের সাদা আলোয় পথচারীদের চলাচলে বিঘ্ন-সৃষ্টি হচ্ছে। সেই সাথে বাড়ছে সড়কে ছোট বড় দুর্ঘটনা। প্রতিদিন এ উপজেলা সদরের মহাসড়কসহ বিভিন্ন সড়কে শত শত অবৈধ যান চলাচল করে থাকে।

জানা যায়, সন্ধ্যার পর এসব অবৈধ যান চালকরা তাদের নিজেদের সুবিধার্থে এলইডি সাদা লাইট জালিয়ে চলাচল করে থাকে।এতে বিপরীত দিক থেকে আসা সাধারণ পথচারী, মোটরসাইকেল চালকসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের যাত্রীসহ চালকের চোখে সরাসরি লাইট লাগার কারনে সামনের দিকের কিছুই দেখতে পায়না তারা। এসময় তাদেরকে দাড়িয়ে অথবা ধীর গতিতে যাওয়া ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না।
 
দামুড়হুদার চিৎলা গ্রামের ট্রাক্টর চালক গোলাম মওলা জানান, পাঁখিভ্যানের সাদা আলোর গতি আমাদের ট্রাক্টরের চেয়ে বেশি। ট্রাক্টরের সামনে দিয়ে রাতে কোন পাখিভ্যান আসলে আমরা সামনের দিকে কিছুই দেখতে পাইনা। এসময় দুর্ঘটনা এড়াতে আমাদেরকেই গাড়ির গতি কমিয়ে পাখিভ্যান পার হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। 

দামুড়হুদা পুরাতন বাজার পাড়ার আতিকুর রহমান বলেন, এই জাতীয় লাইটের আলো এতোই বেশি যে মোটরসাইকেলের সামনে এই অবৈধ যানের সাদা আলো পড়লে ১-২মিনিট আর কিছুই দেখা যায়না ফলে যে কোন সময়  দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 

দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ বলেন, ব্যাটারিচালিত পাখিভ্যান-ইজিবাইক গুলোতে যে এলইডি সাদা লাইট ব্যবহার করে এটা চোখের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এই আলোর ভিতরে যদি সামান্যতম নীল আলো থাকে তা হলে চোখের কোন ক্ষতি হবে না। এই সাদা আলো যদি দীর্ঘক্ষণ চোখে লাগে তাহলে চোখের মারাত্মক ক্ষতি হয়। দীর্ঘ দিন ধরে এমন আলো সরাসরি চোখে লাগতে থাকলে রেটিনার কর্মক্ষমতা কমে যেতে শুরু করে। আর একবার রেটিনা সেল খারাপ হতে শুরু করলে সেগুলিকে পুনরায় আর সুস্থ করে তোলা সম্ভব হয় না। ফলে দৃষ্টিশক্তি কমে যেতে শুরু করে।তাই এই বিষয়ে সর্ব সাধারণের সাবধান থাকাটা একান্ত প্রয়োজন বলে আমি মনে করি। 

সর্ব সাধারণের জন্য ক্ষতিকারক অবৈধ-যানে সাদা এলইডি লাইট পরিহারে জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন সচেতন মহল।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর