সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৩ ১৪২৬   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪১

৯৫

ট্যাডোব’র পরিচয়পত্র বিতরণ, ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয়

বিনোদন ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২০  

যোগ্য সম্মান ও যোগ্য সম্মানী প্রাপ্তির লক্ষ্যকে সামনে রেখে টেলিভিশন ও অনলাইন মাধ্যমে যুক্ত সহকারী পরিচালকদের সংগঠন টেলিভিশন এ্যাসিসটেন্ট ডিরেক্টর’স অর্গানাইজেশন অব বাংলাদেশ (ট্যাডোব) এর পরিচয়পত্র বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার (১১ জানুয়ারি, ২০২০) সন্ধ্যায় রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার কক্ষে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পরিচয়পত্র বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি সালাউদ্দিন লাভলু। বিশেষ অতিথি ছিলেন একই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক এবং ট্যাডোবের সাবেক আহ্বায়ক ও ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্য ফিরোজ খান।

এসময় ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি সালাউদ্দিন লাভলু বলেন, সবচেয়ে বড় সাফল্য সংগঠিত হওয়া। যেটা আপনারা পেরেছেন। এখন শুধু সামনে এগিয়ে যাওয়া। মনে রাখবেন, সহকারী পরিচালক একজন হাইলি ক্রিয়েটিভ পারসন। তাই নিজেদেরকে সেভাবেই প্রস্তুত করতে হবে। আশা রাখি, আপনারা সেটা পারবেন।

তিনি বলেন, একটা ধারাকে যুগ যুগ ধরে বাঁচিয়ে রাখেন সহকারী পরিচালকরা। যেমন, সুভাষ দত্তকে বাঁচিয়ে রেখেছেন তার এ্যাসিসটেন্টরা।

ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি বলেন, প্রিপ্রোডাকশন থেকে চ্যানেলে মাস্টার জমা দেয়া পর্যন্ত একজন সহকারী পরিচালক অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। তাই এ কথা অস্বীকার করার উপায় নেই যে, আপনারা আমাদেরই অংশ। আমার বিপদে আপনি আছেন, আপনার বিপদে আমি ও ডিরেক্টরস গিল্ড আছে। এগিয়ে যান, সবার জন্য শুভকামনা। 

ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক বলেন, এ্যাসিসটেন্ট ডিরেক্টররা ডিরেক্টরদের সন্তান। তারা কাজকে সুন্দর ও সহজ করে তোলেন। ডিরেক্টরদের কাজের প্রেশার কমিয়ে দেন। এ কারণে তাদের ভূমিকাকে অকপটে স্বীকার করতে হবে।

তিনি বলেন, যারা এখনো ট্যাডোবের সদস্য হননি অথচ ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন, তাদের অবশ্যই এই সংগঠনের ছায়াতলে আসতে হবে। কারণ এটা একটা পরিবার। একজনের বিপদে-আপদে আরেকজন পাশে দাঁড়াতে পারবে। ডিরেক্টরস গিল্ড অতীতেও ট্যাডোবের পাশে ছিল, আছে এবং থাকবে।

ট্যাডোবের সাবেক আহ্বায়ক ও ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্য ফিরোজ খান বলেন, এটা আমার প্রাণের সংগঠন। এর সঙ্গে অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। সেই শুরু থেকেই সঙ্গে আছি। অনেক প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে আজ আমরা এখানে আসতে পেরেছি। একারণে সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা। 

তিনি বলেন, আজ সংগঠনের পরিচয়পত্র বিতরণ করা হলো। বিষয়টি সত্যিই আনন্দের। অনেক ভালো লাগছে। এখন আমাদের উচিত সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া। সংগঠন এগিয়ে যাচ্ছে, যাবে। থামবে না। 

ট্যাডোবের সহ-সভাপতি মনসুর আলী বাবলুর স্বাগত বক্তব্যে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি জীবন রায়।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে সংগঠনের সহ-সভাপতি মনির হোসেন, এ আর আকাশ,  যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অপূর্ব রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামল শিশির, অর্থ সম্পাদক সজীব মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক সফিউল বি জিতু, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক এস এ সুমন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এম এইচ রাসেল, আইন ও কল্যাণ সম্পাদক ফজলুল সেলিম, কার্যনিবাহী সদস্য ফয়সাল আহমেদ, শাহরিয়ার কবির, দ্বীন ইসলাম সম্রাট, মিজানুর রহমান রাকিব, জবা ইসলাম, শাব্দিক শাহীনসহ সাধারণ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ট্যাডোবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক গাজী (রাজ্জাক রাজ)। 

পরিচয়পত্র বিতরণের আগে উপস্থিত সদস্যদের নিয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়, যাতে সহকারী পরিচালকরা নিজের কর্মের মাধ্যমে মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রিকে সুশৃঙ্খল পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে সামনে এগিয়ে নিতে পারে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা