বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯   ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পাওয়ায় শুভেচ্ছায় সিক্ত ইবি ভিসি জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ নিয়ে সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত হজের নিবন্ধনের সময় বাড়লো
২৭৬

কুমারখালীতে হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০২২  

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হত্যা মামলার আসামি আমিরুল ইসলামকে (৫৫) কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেলে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। তাঁর বাড়ি উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামে।

পুলিশ, নিহত আমিরুলের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তার ও সমাজপতিদের দলাদলিতে ২০২০ সালের ৩১ মার্চ ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে নেহেদ আলী (৬৫) ও বকুল আলী (৫৫) নামে দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পরের দিন নিহত নেহেদ আলীর ছেলে নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে ২৮ জনকে আসামি করে কুমারখালী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। সেই মামলার ৮ নম্বর আসামি ছিলেন আমিরুল ইসলাম।

পুলিশের ধারণা, আগের হত্যার জের ধরে বদলা নিতে বাদীপক্ষের লোকজন গতকাল বিকেলে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমিরুল ইসলামের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় তাঁর পা, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ কুপিয়ে জখম করা হয়। তিনি গুরুতর আহত হলে স্বজনেরা তাঁকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত আমিরুলের মেয়ে সুমনা খাতুন অভিযোগ করেন, ‘জোড়া খুনের বদলা নিতে বাবাকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। আমি এই হত্যার বিচার চাই।’

নিহত আমিরুলের চাচাতো ভাই আলম মণ্ডলের ভাষ্য, গতকাল বিকেলে জোড়া খুন মামলার বাদীপক্ষের কয়েকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাঁর ভাইকে কুপিয়ে রেখে চলে যায়।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে জোড়া খুন মামলার বাদী নুরুল ইসলামের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, নিহত ব্যক্তি জোড়া খুনের মামলার আসামি ছিলেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বাদীপক্ষ এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর