বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯   ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
সর্বশেষ:
উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তিতে আসন সংকট হবে না : শিক্ষামন্ত্রী জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব নিজের বাল্যবিবাহ ঠেকানো চুয়াডাঙ্গার শ্রাবন্তী জিপিএ-৫ পেয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুষ্টিয়ার এক উপজেলাতেই ২৮টি অবৈধ ইটভাটা!
২৯

কিশোর গ্যাং লিডার বাংলা অনিক গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২২  

রাজধানীর পল্লবী থেকে কিশোর গ্যাং লিডার মো. হাসিবুল হাসান ওরফে বাংলা অনিকসহ পাঁচজনকে দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪। 

র‌্যাব-৪ সহকারী পরিচালক এএসপি (মিডিয়া) মাজহারুল ইসলাম মঙ্গলবার দুপুরে জানান, সোমবার রাতে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের একটি অস্থায়ী গ্যারেজের পেছনে অভিযান চালিয়ে একটি চাকু, একটি ছুরি, দুটি চাপাতি, ছয়টি মোবাইল, ১০টি সিম কার্ডসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতার অন্যরা হলো- মো. বাহাদুর, মনির হোসেন ওরফে সোহেল ওরফে পাতা সোহেল, আরিফুল ইসলাম ওরফে অপি ও অহিদুজ্জামান ওরফে অহিদুর জামান।

২ অক্টোবর যুগান্তরের প্রথম পাতায় ‘পল্ল­বীর আতঙ্ক কিশোর গ্যাং প্রধান অনিক’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, অনিকের কিশোর গ্যাংয়ের নাম ‘ভইরা দে’। মাদক ব্যবসা, হামলা, অস্ত্র নিয়ে মহড়াসহ নানা অপকর্মে জড়িত গ্যাংটি। মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় এক স্কুল শিক্ষার্থীসহ তিনজনকে সম্প্রতি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে অনিক ও তার সহযোগীরা।

মাজহারুল ইসলাম বলেন, র‌্যাব-৪ এর একটি দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে, ইস্টার্ন হাউজিং এলাকায় পল্ল­বীর বহুল আলোচিত কিশোর গ্যাং গ্রুপের লিডার হাসিবুল হাসান ওরফে বাংলা অনিকসহ ১২-১৫ জন সদস্য সংঘবদ্ধভাবে বেশ কয়েক দিন ধরে রাতের অন্ধকারে সাধারণ পথচারী ও যানবাহনে ছুরি ও বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে ডাকাতি করে আসছে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার রাতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। 

সহকারী পরিচালক আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতার ব্যক্তিরা পল্ল­বী এলাকার বহুল আলোচিত ‘কিশোর গ্যাং গ্রুপের’ সদস্য। বাংলা অনিক এই গ্রুপের লিডার। প্রত্যেকের নামে পল্ল­বী থানায় মারামারি, ছিনতাই এবং মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

পল্লবী থানা সূত্র জানায়, এ ঘটনায় মঙ্গলবার অনিকসহ সাতজনের নাম উলে­খ ও অজ্ঞাত ২-৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামিদের মধ্যে নাম উল্লেখ করা অন্য দুজন হলো- জিন্নাত ও হেলাল। তারা পলাতক।

পলবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম বলেন, অনিকসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রত্যেকের নামে পল্লবী থানায় মারামারি, ছিনতাই ও মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর