রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭   ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
৫৬৪

উন্মুক্ত শরীরগঠন প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন মানস

প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০১৯  

ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠিত ‘সেলিম আল-মাহমুদ প্রেজেন্টস ওয়ালটন মিস্টার ঢাকা উন্মুক্ত শরীরগঠন এবং ফিজিক চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৯’ এর দলগত চ্যাম্পিয়ন  চট্টগ্রামের মানস জিম ও রানার্স-আপ হয়েছে ঢাকার রায়হান ফিটনেস।

রোববার বিকেলে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের তৃতীয় তলাস্থ কনফারেন্স রুমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোনেশনের মেয়র মোহাম্মাদ সাঈদ খোকন। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাইটেল স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। 

আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৪১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সারোয়ার হাসান আলো, বাংলাদেশ শরীরগঠন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মিস্টার বাংলাদেশ মো. নজরুল ইসলাম, টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্য-সচিব নুরুল ইসলাম খাঁন নাঈমসহ অন্যান্যরা।

এবারের প্রতিযোগিতায় মেনস বডিবিল্ডিং বিভাগের ৬০ কেজি পর্যন্ত দৈহিক ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন লালবাগের রায়হান ফিটনেসের মো. রবিন হাসান; দ্বিতীয় হয়েছেন মালিবাগের ফিটো ফিটনেসের মো. তানিন ইসলাম এবং তৃতীয় হয়েছেন নারায়ণগঞ্জের গ্যালাক্সি জিমের নাজিম খাঁন। ৬৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন মুন্সিগঞ্জের ওল্ড জিমের অন্তু হোসেন ঢালি; দ্বিতীয় হয়েছেন বাংলাদেশ জিমের মোহাম্মদ সাব্বির এবং তৃতীয় হয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. আমরান আলী। ৭০ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন ঢাকার ফার্স হোটেল এন্ড রিসোর্টের রঞ্জিত চন্দ্র সরকার; দ্বিতীয় হয়েছেন মুন্সিগঞ্জের ওল্ড জিমের মিঠু চোকদার এবং তৃতীয় হয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গোলাম মোস্তফা। 

৭৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন চট্টগ্রামের ফিটনেস কিংডম জিমের সুমন দাস; দ্বিতীয় হয়েছেন উত্তরার হ্যামার জিমের মো. সৈকত আল শুভ এবং তৃতীয় হয়েছেন চট্টগ্রামের মানস জিমের মিস্টার জয় । ৮০ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন শ্রেডেড আর্মির মো. রিয়াজ উদ্দিন; দ্বিতীয় হয়েছেন শ্রেডেড আর্মির ইসমাইল খান এবং তৃতীয় হয়েছেন চট্টগ্রামের মানস জিমের তৌহিত ইসলাম সিদ্দিকী। ৮০+ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন গ্যালাক্সি জিমের শেখ জামাল; দ্বিতীয় হয়েছেন এলিট বডি ফিটনেস সেন্টারের মো. ইমরানুল হক এবং তৃতীয় হয়েছেন ঢাকার হ্যামার জিমের রাজেশ চক্রবর্তী ।

এদিকে মেনস ফিজিক বিভাগের ১৬৬ সে.মে. পর্যন্ত দৈহিক উচ্চতা শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন চট্টগ্রামের মানস জিমের মো. সাইফুল ইসলাম তালুকদার; দ্বিতীয় হয়েছেন ঢাকার ফিটনেস জিমের মোহাম্মদ রিয়াদ এবং তৃতীয় হয়েছেন শাকিল বডিবিল্ডিং ক্লাবের আবিদুজ্জামান সিয়াম। ১৭০ সে.মি. পর্যন্ত দৈহিক উচ্চতা শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন লাইভ ফিট পারফরন্সের মোঃ সুমন; দ্বিতীয় হয়েছেন মোহাম্মদপুরের এলিট জিমের মো. সবুজ হোসেন (অনিক) এবং তৃতীয় হয়েছেন শ্রেডেড আর্মির আবু সুফিয়ান রাজু । ১৭০ সে.মি. এর উর্ধ্বে দৈহিক উচ্চতা শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন বাংলাদেশ জিমের মো. রবিউল, দ্বিতীয় হয়েছেন বাংলাদেশ জিমের শিব রাজন এবং তৃতীয় হয়েছেন চট্টগ্রামের মানস জিমের জাহেদ হাসান তাসিন।

প্রতিযোগিতার প্রাইজমানি ছিল ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। মেনস বডিবিল্ডিং মিস্টার ঢাকার প্রত্যেক ওজন শ্রেণির প্রথম স্থান অর্জনকারী পান মেডেল, স্ট্যাচু, সনদপত্র ও ১৫ হাজার টাকার ক্যাশ অ্যাওয়ার্ড। যারা দ্বিতীয় হয়েছেন তারা পেয়েছেন মেডেল, সনদপত্র ও ১০ হাজার টাকা। তৃতীয় স্থান অধিকারকারীরা পেয়েছেন মেডেল, সনদপত্র ও ৫ হাজার টাকা। আর চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ স্থান অধিকারকারীরা মেডেল, সনদপত্র ও টাইটেল স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে আকর্ষণীয় গিফট হ্যাম্পার পেয়েছেন।

মেনস ফিজিকের উচ্চতা অনুযায়ী তিন ক্যাটাগোরির প্রথম স্থান অর্জনকারীরা মেডেল, স্ট্যাচু, সনদপত্র ও ১৫ হাজার টাকার ক্যাশ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। যারা দ্বিতীয় হয়েছেন তারা পেয়েছেন মেডেল, সনদপত্র ও ১০ হাজার টাকা। তৃতীয় স্থান অধিকারকারীরা পেয়েছেন মেডেল, সনদপত্র ও ৫ হাজার টাকা। আর চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ স্থান অধিকারকারীরা পেয়েছেন মেডেল, সনদপত্র ও টাইটেল স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে আকর্ষণীয় গিফট হ্যাম্পার।

এবারের এই প্রতিযোগিতায় ১১০টি ক্লাব থেকে ৩২৫ জন বডিবিল্ডার অংশ নিয়েছেন। এবারের এই প্রতিযোগিতার মিস্টার ঢাকা ছয়টি ওজন শ্রেণিতে অনুষ্ঠিত হইয়েছে। ওজন শ্রেণিগুলো হল ৬০, ৬৫, ৭০, ৭৫, ৮০ ও ৮০+ কেজি। আর ফিজিকে উচ্চতা অনুযায়ী তিনটি ক্যাটাগোরিতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেগুলো হল ১৬৬ সে.মি, ১৭০ সে.মি ও ১৭০+ সে.মি। 

 কুষ্টিয়ার  বার্তা
 কুষ্টিয়ার  বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর